ঐতিহ্য

বর্ধনশীল সবজি ও শাক রোপন প্রতিযোগিতা আহবান

ছাত্রছাত্রী, কর্মজীবী, গৃহিনী যারাই গ্রামে আছেন বা গেছেন অথবা যারা বাসায় আছেন, তারা সবাই নিজেদের বাড়ির আঙিনায় বা বাসার ছাদ বা বারান্দার জায়গাগুলো কাজে লাগাতে পারি।

লক ডাউনের সময়টাতে বর্ধনশীল সবজি ও শাক রোপন করে আমরা আমাদের পরিবারের,  প্রতিবেশী ও আত্মীয়দের জন্য খাদ্য ব্যবস্থায় কিছুটা হলেও সহায়ক হয়ে উঠতে পারি। সেই সাথে সংকট উত্তরণে অর্থনীতির চাকাটাও সচল করতে পারি। এই প্রচেষ্টার সাথে আছে বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ সৃজনশীল প্রকাশনা ঐতিহ্য।
অবরুদ্ধ এই সময়টাতে একটুখানি উৎপাদনশীলতা বা প্রোডাক্টিভিটি সুরক্ষিত রাখবে পরিবারকে, আত্মীয়কে, প্রতিবেশীকে- সেই সাথে সচল রাখতে চেষ্টা করবে প্রিয় মাতৃভূমিকে, ঐতিহ্য এই প্রচেষ্টা নিয়েছে।

আগামী ২০ মে, ২০২০ এর মধ্যে বাগান, অথবা বীজতলার এক বা একাধিক ছবি পাবলিক পোষ্ট করতে হবে ফেসবুক ওয়ালে, লিখদে হবে উৎসাহমূলক কিছু ভাবনা। আর তার লিংক দিয়ে দিন ঐতিহ্যের ফেসবুক পেজের এই পোস্টের নিচে কমেন্ট বক্সে অথবা ঐতিহ্যের ফেসবুক গ্রুপে।  সেখান থেকে সেরা তিনজনের প্রত্যেকেই পাবেন ঐতিহ্যের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা উপহার- বীজ, জৈবসার, বাগান করার কিছু সরঞ্জাম ও ৫ হাজার টাকা মূল্যমানের ঐতিহ্য প্রকাশিত বই।
তাহলে শুরু হোক- করোনার অবরুদ্ধকালে উৎপাদনশীলতা।
#ঐতিহ্যঅবরুদ্ধকালেউৎপাদনশীলতা
#ঐতিহ্যকরোনারপ্রোডাক্টিভিটি
#ঐতিহ্যপ্রোডাক্টিভিটি
————————————————
যেভাবে করতে হবে-
১. আপনার বাগানের ছবি বা বীজতলার ছবি, বাসার ছাদের টবে লাগানো গাছের ছবি তুলুন।
২. আপনার ফেসবুক ওয়ালে এক বা একাধিক ছবি পাবলিক পোস্ট দিন, উৎসাহমূলক কিছু কথা লিখুন এবং হ্যাশট্যাগ দিন-  #ঐতিহ্যঅবরুদ্ধকালেউৎপাদনশীলতা  
  #ঐতিহ্যপ্রোডাক্টিভিটি   #ঐতিহ্যসামাজিকআন্দোলন।
৩. আপনার পাবলিক পোস্ট দেয়া ছবির লিংক এই পোস্টের নিচে কমেন্ট বক্সে দিন।
৪. বিজয়ীদের থেকে ঠিকানা চেয়ে নেয়া হবে।
৫. ২০ মে, ২০২০ রাত ১১.৫৯ মিনিট পর্যন্ত চলবে এই উৎসাহমূলক প্রতিযোগিতা।  
৬.পাঠক, লেখক ও ঐতিহ্যের কর্মীরা সবাই অংশগ্রহণ করতে পারবে।

Check Also

৩০ মে পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ

করোনা ভাইরাসের কারণে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটির মেয়াদ ৩০ মে পর্যন্ত নির্ধারণ করেছে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *