শিল্পীকে বাঁচাতে সেভ দ্যা বাংলাদেশ মিউজিক ইন্ডাস্ট্রি

সঙ্গীত জগতের শিল্পীদের সহায়তার জন্য গঠিত হল সেভ দ্যা বাংলাদেশ মিউজিক ইন্ডাস্ট্রি, Save The Bangladesh Music Industry (SBMI)

সঙ্গীত শিল্পী, মিউজিসিয়ান, সুরকার, গীতিকার, মিউজিক ডিরেক্টর/ কম্পোজার, সাউন্ড লাইট টেকনিশিয়ান সহ সঙ্গীত জগতের সকলের সহায়তার জন্য সরকারের সাথে কাজ করার প্রত্যয় নিয়ে গঠিত হল সেভ দ্যা বাংলাদেশ মিউজিক ইন্ডাস্ট্রি । সংগঠনের যুগ্ম আহবায়ক সালমান মাহমুদ জানান শিল্পীদের সহায়তায় এগিয়ে আসার জন্য সঙ্গীতার কর্ণধার সেলিম খান, আতিক ডালিম, ফারহাতুল জান্নাত ও আমি এ বিষয়ে ঐক্যমত পোষণ করে প্রাথমিক কাজ শুরু করি এবং সেলিম খানকে আহবায়ক করে সেভ দ্যা বাংলাদেশ মিউজিক ইন্ডাস্ট্রির একটি আহবায়ক কমিটি গঠিত হয়। ধীরে ধীরে সকলকে নিয়ে আমাদের কাজকে সামনে এগিয়ে নিযে যাব।

বিশ্বব্যাপী অদৃশ্য কোভিট- ১৯ করোনা ভাইরাস মহামারীতে রুপান্তরিত হওয়ার কারণে থমকে গেছে বাংলাদেশ। দিন দিন বেড়েই চলেছে আক্রান্ত এবং মৃত্যুর হার। যার প্রতিকার হিসেবে সচেতনতা এবং নিরাপদে থাকার জন্য সরকার ঘোষিত লকডাউন চলছে। এই পরিস্থিতিতে সঙ্গীত জগতের অনেকেই আর্থিক ভাবে খুব খারাপ অবস্থানে আছেন যারা মুখ ফুটে বলতে পারছেন না। সকল অনুষ্ঠান এবং কাজ বন্ধ হওয়াতে সঙ্গীত নির্ভর পরিবারগুলোর সংসার চালানো দুষ্কর হয়ে পড়েছে।

সেভ দ্যা বিডি মিউজিক ইন্ডাস্ট্রির সদস্য সচিব আতিক ডালিম মিডিয়া খবরকে জানিয়েছেন ভবিষ্যতে করোনার এই পরিস্থিতি চলতে থাকলে শিল্পীদের জীবনসংসারের ঘানি টানা আরও কঠিন হয়ে পড়বে। তাই তাদের কথা ভেবে জরুরী ভিত্তিতে এই সংকট থেকে কিছুটা উত্তরণের জন্য সরকারি উচ্চ মহলের সাথে কাজ করা ও শিল্পীদের জন্য সহযোগিতা আদায়ে ভুমিকা রাখার জন্য আমরা SBMI একটি আহবায়ক কমিটি দাড় করিয়েছি।

তিনি আরো জানান SBMI থেকে আহবান জানান হয়েছে রাজধানী ঢাকাসহ সমগ্র বাংলাদেশের সঙ্গীত জগতের যারা কমিটির সাধারণ সদস্য হতে ও অনুদান পেতে ইচ্ছুক তারা যেন রবিবার ২৭ এপ্রিল ২০২০ এর মধ্যে তাদের বিস্তারিত তথ্যাবলী পাঠিয়ে দেন। নিচে দেয়া হল যে ভাবে তথ্যাবলি দিতে হবে।

নামঃ
পিতাঃ
মাতাঃ
পেশাঃ অবশ্যই সংগীত বিষয়ক যে কোন মাধ্যম
(সুরকার/গীতিকার/শিল্পী/যন্ত্রী/মিউজিশিয়ান/কম্পোজার/লাইট ও সাউন্ড টেকনিশিয়ান)
আপনার পেশা সঠিক ভাবে লিখুন
ঠিকানা স্থায়ীঃ
ঠিকানা বর্তমানঃ
ভোটার আইডি/ জন্ম নিবন্ধনঃ
ই মেইল আইডিঃ
মোবাইল নাম্বার ও বিকাশ নাম্বারঃ
অথবা
ব্যাংক একাউন্ট নম্বরঃ

তালিকাভুক্তির জন্য উপরোক্ত ক্রাইটেরিয়াগুলো বাংলায় লিখে আতিক ডালিম – 01924781636 ও ফারহাতুল জান্নাত 01712222736 এ দুটো নম্বরের যে কোন একটিতে পাঠিয়ে দেবার অনুরোধ করা হয়েছে।

Check Also

৩০ মে পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ

করোনা ভাইরাসের কারণে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটির মেয়াদ ৩০ মে পর্যন্ত নির্ধারণ করেছে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *